স্মৃতিতে অমর

ফারহা নূর

0
181

এইতো সেই কৃষ্ণচূড়া,
যার ছায়ায় মাড়িয়েছিলো
বুক পকেটের চিঠিখানি।
কত জল গড়িয়েছে আশালতার বুক ছিঁড়ে,
বকুলের মালাখানি আটকে আছে
বোতামের ফাঁক গলে!
এখনো সেই স্পর্শ জড়ানো সজীব ঘ্রাণ।
ছাপাক্ষরে লিখেছিলে,
মায়াবতী! আসার পথে বটতলার হাট
থেকে কাঁচের লাল চুড়ি আনবো
নিজ হাতে পরিয়ে দিব।
এবারতো চোখে কাজল ছোঁয়াও!
চলতে থাকা পথের বাঁকে এখনো থমকে দাঁড়াই তোমার নিভৃত আলোড়নে।
কাজল কালো চোখ জোড়া এখনও তোমায় খোঁজে!
এইতো সেই লাল বেনারসি
সফেদ সাদার আলিঙ্গনে মুখ লুকায়,
আঁচলে এখনো ফুটে আছে আয়না বিবি!
আবার আসিব ফিরে তোমার নীড়ে,
এই বলে প্রস্থান করেছিলে নববধূর বাহু ছেড়ে।
কথা রাখোনি তুমি!
অভিমান সব নিমিষেই মিলে যায় পাখিদের ভিড়ে।
তোমার স্পর্শে অঙ্কুরিত সেই কলি
ফুটেছে মুক্ত নীড়ে,
তোমারই সৃষ্টির তীরে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here