তোমাকে চাই

উম্মে হাবিবা

0
838
bengali golpo
অদ্ভুত কিছু সময় কাটানো তারপর ভীষণ ক্লান্ত শরীর।কিছু অদ্ভুত চাওয়া,অদ্ভুত আকাক্ষা আর কিছু জমানো কথা।
  দিন শেষে প্রতিটা মানুষ চায় কেউ তার এলো চুলে বিলি কেটে জিজ্ঞেস করুক ‘কেমন কাটলো দিন’….কিংবা দূরে বসে সামাজিক মাধ্যমের টুংটাং এ বলুক ‘সারাদিনের ব্যস্ততায় কি ভুলে গেলে আমাকে’…….
   একরাশ অভিমান নিয়ে বলুক ‘এখন কি তবে আমার বুকে মাথা রেখে হ্রদস্পন্দন শুনতে ইচ্ছা করে না’….কিংবা বলুক ‘অনেক দিন তোমায় দেখি না,তোমার ভেজা বারান্দায় একটু দাঁড়ানোর  আবদার মিটাবে’!…..
    নিত্যনতুন চাওয়া-পাওয়া গুলা মনের মধ্যে জমতে জমতে একটা সময় পাহাড়সম হয়ে যায়।তখন নিশ্বাস বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়ে দাঁড়ায়।
   দিন শেষে সত্যি একটা হাতের প্রয়োজন পড়ে শুধু এইটুকু বুঝার জন্য আমার সাথে আর ও একটা নিশ্বাস জড়িয়ে আছে।কিংবা প্রতি রাতে খুব ঘুটঘুটে অন্ধকারে কেউ বলুক ‘তুই যেখানেই থাকিস,তোকে খুব ভালোবাসিরে পিচ্চি’..
   প্রতিটা মানুষ তার বিপরীতে যে কোন একজন মানুষের প্রতি দূর্বল থাকে।হোক তিনি মা বা বোন বা বন্ধু বা প্রেমিক/প্রেমিকা।তার কাছে সব অন্যায় আবদার ক্ষণিকে মিটানো যায়,বলা যায় সব গোপন কথা,তাকে ইচ্ছামত ভালো ও বাসা যায়।
    প্রতিদিনের যে চাওয়া-পাওয়া গুলো অপূর্ণ থেকে যায়,যে আশা-আকাক্ষা গুলো নিতান্ত অবহেলায় হারিয়ে যায়,সেই সবই রাত বাড়ার সাথে সাথে মন আর চোখে একসাথে এসে নোনাজলের জমাট বাঁধায়।
   জীবন থেমে থাকে না।যে মানুষটার কাছে আমরা পরাজিত তার কাছে ইচ্ছা করেই বারবার পরাজিত হই।
  জানি তিনি হয়তো বা আমার পাশে থাকার জন্য নয়।তবু তার স্থিরচিত্র,পুরনো বার্তা,সময়-অসময়ে করা অভিমান সবই মন কাঁদায়।
  ইচ্ছা করে তার কাছে যাই,দু’দন্ড বসে কথা বলি,বলি তার প্রতি সব অভিমান এর কথা।
   ইচ্ছা হয় সে আমার চিবুক তুলে বলুক ‘পাগলি,তুই এত ভালোবাসিস তবু মুখ ফুটে বলিস না কেনো’…..
   না,সেই সময় হয় না।সেই আশা পূর্ণ হয় না।কিছু দিন বা বছর পর মানুষটা বন্ধ ঘরে অন্য কারোর আঁচলে মুখ মুছে।হয়ে যায় পথ আলাদা।
   একই আকাশের নিচে বাস করা দুই জন মানুষ জানি একজন আর একজনকে চাই।তবু সময়,পরিস্থিতি, যোগ্যতার অভাবে বলা হয় না ‘ভালোবাসি’….
   অনেকদিন পর দেখা হয় পুরনো বটগাছটার নিচে,শুধু চোখে চোখ রেখে নামিয়ে নেওয়া হয়।বলা হয় না অব্যক্ত কথা গুলা,বলা হয় না কুঁড়ে কুঁড়ে খাওয়া যন্ত্রণাগুলার কথা।……..
  তবু জীবন থেমে থাকে না।তবু আমরা অপেক্ষা করি।তবু আমরা জানলার ধারে দাঁড়িয়ে ভাবি সে এলো বুঝি।
   তবু ভাবি এই বুঝি মুঠোফোনে তার বার্তা এলো।কিংবা অচেনা কোন ঠিকানা থেকে কিছু রজনীগন্ধার কলিসমেত চিঠি!….
    সব কিছু মিলিয়ে আমরা সেই মানুষটাকে চাই যাকে উপলব্দি করা যায়,ছোঁয়া যায় না।ভালোবাসা যায়,বলা যায় না।…….
   হ্যাঁ,তবু জীবন থেমে থাকে না।আমরা অপেক্ষা করি সে আসবে।এসে বলবে ‘পাগলি,তোকে ছাড়া দম বন্ধ লাগছে তাই চলে এলুম’।…..

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here